কাজী মোঃ ফরহাদ হোসেনের দু’টি কবিতা

কাজী মোঃ ফরহাদ হোসেনের দু’টি কবিতা

November 1, 2018 191 By মিরসরাই খবর

দেশের মুখে কালি

কাজী মোঃ ফরহাদ হোসেন

mAD

দেশের মুখে কালি মেখে লাভ কি হবে বলো,

অমানুষের কথায় কেন এসব কাজে চলো।

ধর্মঘটের কারণে আজ করলি গাড়ি আটক,

অ্যাম্বুলেন্সকে আটকে রাখায় মরছে নবজাতক,

পরিবহন ধর্মঘটের প্রয়োজন কি ছিলো,

জনগনের শান্তি কেড়ে শাস্তি তাদের দিলো।

ছাত্র ছাত্রীর গায়ে কেন মাখলো তারা কালি?

চাচার মুখে কালি মেখে করছে গালা গালি।

মন্ত্রী মশাইর কথা শুনে হাসতে হবে সবার,

মন্ত্রী মশাই জানে নাতো ধর্মঘটটি হবার!

কেমন দেশের মন্ত্রী তিনি লজ্জা যদি থাকতো,

দেশ জনতার কাছ থেকে তার মুখ লুকিয়ে রাখতো।

ছাত্র ছাত্রীর আন্দোলনে সোনার বাংলা গড়লো,

ধর্মঘটের আন্দোলনে অপমানে পড়লো।

ছাত্র ছাত্রী চালু করলো ইমারজেন্সি লাইন,

ধর্মঘটে ভেঙ্গে দিলো ছাত্র ছাত্রীর আইন।

ছাত্র ছাত্রী ছেয়েছিলো দেশের সেবা করতে,

পরিবহন শ্রমিকেরা অসলো কেন মরতে।

 

মুখ লুকিয়ে হাসি আমরা প্রবাসি

কাজী মোঃ ফরহাদ হোসেন

সকাল দুপুর সন্ধ্যা রাতে কাজে ডুবে থাকি,

দুএক টাকা বেশি পেতে কাজকে ধরে রাখি।

দেশের মানুষ ঘুমায় রাতে আমরা থাকি কাজে,

এসব কথা বলতে গেলে বলবে লোকে বাজে।

কষ্ট করি সারা বেলা নষ্ট করি ঘুমকে,

দেশের লোকে শুয়ে আছে আপন করে উমকে।

জুতা পালিশ মুজা ধোলাই করতে আমার জানি,

জুতার পালিশ টাকা দিয়ে দেশের শান্তি আনি।

দেশের জন্য জীবন দিবো দেশকে ভালবেসে,

দেশের লোকে কি সব বলে? জবাব দিবো হেসে।

বেশি কিছু বলতে চাইনা একটা কথা বলি,

নিজের দেশকে ভালোবেসে বুক ফুলিয়ে চলি।

(কাজী ফরহাদ হোসেন, মিঠানালা, মিরসরাই। মালদ্বীপ প্রবাসী)

mAD