রোয়াংছড়িতে ভাগিনার হাতে মামা খুন

রোয়াংছড়িতে ভাগিনার হাতে মামা খুন

November 19, 2018 113 By মিরসরাই খবর

মিরসরাইখবর ডেস্ক : বান্দরবানে রোয়াংছড়িতে আপন ভাগিনার হাতে মামা খুন হয়েছে। রোববার (১৮ নভেম্বর) রাত ৮টা সময় ম্রক্ষ্যং পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।
সূত্রে জানা যায়, মৃত্য ব্যক্তি ম্রক্ষ্যং পাড়া বাসিন্দা সাগ্য মারমা ছেলে সিংনুমং মারমা (৩০) এবং অভিযুক্ত হল মেঝো মেয়ের ছেলে নাতি উক্যসিং মারমা (১৪) বলে জানা গেছে।
রোয়াংছড়ি থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আরিফুল ইসলাম সত্যতা স্বীকার করেছেন।

mAD

খুনের ঘটনা সাথে সাথে পাড়া বাসিরা ইউপি মেম্বার মেচিং মারমাকে অবহিত করেন। পরে ইউপি মেম্বার মেচিং মারমা ইউপি চেয়ারম্যান অংথোয়াইচিং মারমাকে জানালে তিনি পুলিশকে জানাতে বলেন।

এর পরে দেরি না করে রোয়াংছড়ি থানা পুলিশকে জানালে ওসি নির্দেশে এসআই মাহাবুব আলম খান ও পিএসআই আরিফুর রহমান ঘটনা স্থলে গিয়ে মৃত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার সহ অভিযুক্ত উক্যসিং মারমা (১৪) কে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন।

এলাকার প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সিংনুমং মারমা ও স্ত্রী চিংম্রাস্বং মারমা মধ্যে দুই জনে ব্যাপক বাগ বিতন্ডা আওয়াজ শুনে মৃত্য ব্যক্তি মেঝো বোন হ্লামেচিং মারমা (৩৩) ঘটনা স্থলে এসে স্বামী-স্ত্রী দুই জনকে ঝগড়া না করতে মানা করেন। ওই সময় মেঝো বোনে কথা না শুনলে রাগে মাথায় ছোট ভাই সিংনুমং মারমাকে ক’টা থাপ্পর মারে। ছোট ভাই সিংনুমং মারমাও পাল্টা আক্রমনে আঘাতে মেঝো বোন অজ্ঞান হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে।

এ অবস্থায় মেঝো বোনে ছেলে উক্যসিং মারমার উপস্থিত হলে তার মামাকে লাঠি দিয়ে আঘাত করে। এতে ভাগিনা হাতে আঘাতে গুরুত্বর আহত হয় মারমা সিংনুমং মারমা। পাড়ার বাসিন্দারা আহত অবস্থায় ভাই-বোনকে উদ্ধার করে বান্দরবান সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে সিংনুমং মারমা বান্দরবান নতুন ব্রীজ এলাকায় মারা যায়। মেঝো বোন গুরুত্বর আহত অবস্থায় সদর হাসপাতালে ভর্তি আছে।

mAD