হেসে সম্মান দেখানোয় শিক্ষার্থীর চোখ নষ্ট করে দিল শিক্ষক

হেসে সম্মান দেখানোয় শিক্ষার্থীর চোখ নষ্ট করে দিল শিক্ষক

July 3, 2018 403 By মিরসরাই খবর

এ ঘটনায় অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছে পুলিশ। এরইমধ্যে অভিযুক্ত শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত করেছে জেলা শিক্ষা অফিস। অভিযুক্ত শিক্ষক তিন মাস আগে দরগাখোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন। যে স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী শম্পা আক্তার।স্বজনদের অভিযোগ, সোমবার বিকেলে মাদারীপুরের দরগাখোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ক্লাসরুমে শিক্ষককে দাড়িয়ে সম্মান দেখানোর সময় শিক্ষার্থী শম্পা আক্তার হেসে ফেলে। এসময় ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে মারধোর করেন শিক্ষিকা দিল আফরোজ রত্না। এসময় বাম চোখে মারাত্মকভাবে আঘাত পায় শম্পা।

শিক্ষার্থীর বাবা মা বলেন, আমার মেয়েকে আগের মত দেখতে চাই। আর বর্তমানে শিক্ষকদের বেত ব্যবহার না করার কথা বলা হয়। তাহলে আমার মেয়েকে মারা হলো কেন!

গুরুতর অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে বাসায় নিয়ে যায় সহপাঠীরা। পরে তাকে মাদারীপুর চক্ষু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে মঙ্গলবার সকালে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে গোপালগঞ্জ চক্ষু হাসপাতালে নেয়া হয়।

মাদারীপুরে বেতের আঘাতে স্কুলছাত্রীর বাম চোখ ক্ষতিগ্রস্তের ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষিকাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। মঙ্গলবার (৩ জুলাই) সকালে জেলা শিক্ষা অফিস থেকে এ নোটিশ জারি করা হয়। এদিকে, উন্নত চিকিৎসার জন্য ঐ শিক্ষার্থীকে গোপালগঞ্জের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।